হাই প্রেসার কমানোর উপায় কি ও এর বিস্তারিত

উচ্চ রক্তচাপ বা হাই প্রেসার কমানোর উপায় কি ও এর বিস্তারিতঃ

উচ্চ রক্তচাপ একটি সাধারণ সমস্যা হলেও হয়ে উঠতে পারে গুরুতর। সাধারণত যখন ধ্বমনীতে অত্যাধিক রক্তের চাপ পরে তখনই উচ্চ রক্তচাপ সমস্যার সৃষ্টি হয়। ফলে স্ট্রোক ও হৃদরোগের ঝুকি বাড়ে। 

ধমনীর আকার সরু হয়ে গেলে রক্ত চলাচলে সমস্যা হয়। তখন শরীর দৈনিক যত বেশি রক্ত সরবরাহ করে ধমনীতে তত বেশি চাপ পরে। আর একেই বলা হয় উচ্চ রক্তচাপ। 

স্বাভাবিকভাবে এর কোন লক্ষ্যণ দেখা যায় না। ফলে প্রাথমিক অবস্থায় এই রোগ নির্ণয় সম্ভব হয় না। এর কারণে এই রোগ অধিকাংশ রোগীর মাঝেই সুপ্ত অবস্থায় দীর্ঘদিন থেকে যায় .। এতে করে রোগীর স্ট্রোক ও হৃদরোগের ঝুকি বেড়ে যায়। 

চিকিতসকের পরামর্শ ছাড়াও কিছু উপায় মেনে চললে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব। আজকের লেখায় সেই আলোচনাই করবো আমরা। 

যা যা করণীয়ঃ

১। উচ্চরক্তচাপ একবার ধরা পরলে এরপর থেকে নিয়মিত রক্তচাপ নির্ণয় করে রাখতে হবে। সাথে জরুরী চিকিসা গ্রহণ করতে হবে। 

২। খাবারের রুটিনে লবণের পরিমাণ কমিয়ে দিতে হবে। কাচা বা অতিরিক্ত লবণ খাওয়া থেকে বিরত থাকতে হবে। যথা সম্ভব এড়িয়ে চলুন। 

৩। ওজন সর্বদা স্বাভাবিক রাখার চেষ্টা করুন। সুস্থতা বজায় রাখার এটি প্রথম পদক্ষেপ। ওজনের পাশাপাশি কোলেস্টেরলের মাত্রা স্বাভাবিক রাখতে হবে। 

৪। শারীরিকভাবে অলস সময় কাটাবেন না। সবসময় সক্রিয় থাকার চেষ্টা করুন।

নিয়মি ব্যায়াম উচ্চরক্তচাপের ঝুকি কমায়। প্রতিদিন ন্যূনতম ৩০ মিনিট ব্যায়াম করার চেষ্টা করুন। 

 ৫। প্রসেসড ফুড ও তেলযুক্ত খাবার এড়িয়ে যান। অতিরিক্ত কার্বোহাইড্রেট যুক্ত খাবার, চর্বি যুক্ত খাবার, ধূমপান, শারীরিক কসরতের অনুপস্থিতি ইত্যাদি উচ্চ রক্তচাপের ঝুকি বহুগুণে বাড়িয়ে দেয়। তাই এসব খাবার থেকে দূরে থাকুন ও নিয়মিত ব্যায়াম করুন। 

টোটকাঃ

খাদ্য তালিকায় আদা রাখার চেষ্টা করুন। রান্নায় আদা ব্যবহার করুন। আদার পুষ্টিগুণ রক্ত সঞ্চালন উন্নত করতে সাহায্য করে। 

অধিকন্তু আদা রক্তচাপ স্বাভাবিক রেখে পেশিকে শিথিল রাখে।

মাথা ঘুরানোর কারণ কি ও জানুন বাঁচার উপায়

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button