মেট্রোরেলের টিকিট কাটার নিয়ম ও বিস্তারিত

মেট্রোরেলের টিকিট কাটার নিয়ম
ঢাকায় মেট্রোরেল চালু হওয়াতে স্বপ্নের বাস্তবায়িন হলো ঢাকা বাসীর তথা সমগ্র দেশবাসীর। এখন মেট্রোরেল আমাদের জন্য কোন স্বপ্ন নয় আর। গত ২৮ ডিসেম্বর মেট্রোরেল উদ্বোধন করেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনিই ছিলেন ঢাকা মেট্রোরেলের প্রথম যাত্রী সাথে ছিলেন অন্যান্য নেতৃবৃন্দ ও গুরুত্বপূর্ণ সদস্যরা।
২৮ ডিসেম্বর বুধবার শেখ হাসিনা মেট্রোরেলের উত্তরা স্টপেজ থেকে চড়ে আগারগাঁও স্টেশনে আসেন। সৃষ্টি করেন নতুন ইতিহাস। এরই মধ্যে জনগণের আনন্দের ঢল ও উচ্ছসিত মুখ ছিলো দেখার মতো। ইতিমধ্যে মেট্রোরেল আনুষ্ঠানিকভাবে তার যাত্রা শুরু করেছে। প্রাথমিকভাবে এটি উত্তরা থেকে আগারগাঁও স্টেশন পর্যন্ত চলবে।
এই প্রেক্ষিতে মেট্রোরেল নির্মাণ দায়িত্বে থাকা কোম্পানি থেকে জানা যায় এই দুই স্টেশনের দূরত্ব ১২ কিঃমিঃ যা পাড়ি দতে সময় লাগবে ১০মিনিট ১০ সেকেন্ড। এই দুই স্টেশনের মধ্যবর্তী আরো ৯ টি স্টেশন থাকলেও এই মূহুর্তে তা কার্যকর করা হচ্ছে না বলে জানান কোম্পানিটির মুখপাত্র।
মেট্রোরেলের টিকিট ব্যবস্থায়ও আনা হয়েছে আধুনিকতা। টিকিট ব্যবস্থায় কাগজের কোন টিকিট থাকবে না। নিতে হবে স্টেশন থেকে ইস্যু করা কার্ড। পাওয়া যাবে দুই ধরণের কার্ড। স্থায়ী ও একক যাত্রার কার্ড। প্রাথমিকভাবে দুইটি স্টেশন থেকেই কার্ড সংগ্রহ করা যাবে। ভাড়া রাখা হচ্ছে ৬০ টাকা।
এছাড়া স্থায়ী কার্ডও নিতে পারবে ১০ বছর মেয়াদী। করা যাবে প্রয়োজনমতো রিচার্জ। এর মূল্য পরবে ২০০ টাকা। তবে এই কার্ড নেয়ার জন্য মেট্রোরেল কর্তৃপক্ষ ঢাকা মাস ট্রাঞ্জিট কোম্পানি লিমিটেড এর নির্দিষ্ট ওয়েবসাইট এ প্রদত্ত লিংক এ আবেদন করতে হবে।
ইতিমধ্যে বৃহস্পতিবার ২৯ ডিসেম্বর লিংক দেয়া হয়েছে । নিবন্ধনে লাগবে বাবা -মা এর নাম, এন আই ডি কার্ড, ইমেইল আইডি ও ফোন নাম্বার। মেট্রোর কার্ড সংগ্রহ করতে হবে স্টেশনের টিকিট অফিস মেশিন (টিওএম) থেকে।
এছাড়াও যাত্রীরা ভেন্ডিং মেশিন থেকে অটোমেটিকভাবে কিনতে পারবে এই কার্ড।
একক যাত্রার টিকিটের জন্য কোন নিবন্ধন প্রয়োজন হবে না। তারা যে কার্ড সংগ্রহ করবে তা ট্রেন থেক্র নামার সময় ফেরত নেয়া হবে। এতে থাকবে নির্দিষ্ট সময়।মেয়াদ শেষে এই কার্ড ব্যবহারের অযোগ্য হয়ে যাবে।
তবে এটিএম কার্ড ব্যবহারকারীরা খুব সহজেই যাতায়াত করতে পারবেন।
Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button