ভারতে উৎপাদিত দুটি সিরাপ ব্যবহারে সতর্কবার্তায় ডব্লিউএইচও 

ভারতে উৎপাদিত দুটি সিরাপ ব্যবহারে সতর্কবার্তায় ডব্লিউএইচও

সম্প্রতি উজবেকিস্তানে ভারতীয় কোম্পানির দুএইচ ই ব্রান্ডের সিরাপ সেবনে ১৯ জন শিশুর মৃত্যু হয়। এর প্রেক্ষিতে উক্ত সিরাপ দুটি ব্যবহারে সতর্ক তাহকতে বলেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। সাময়ীকভাবে তা ব্যবহার থেকে বিরত থাকতে বলেছে ‘হু।’ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা সতর্ক করে বলেন উজবেকিস্তানে আপাতত এই কাশির সিরাপ দুটি ব্যবহার করা থেকে বিরত রাখতে। উল্লেখ্য সিরা দুটি ম্যারিওন বায়োটেকের উপাদিত যা ভারতের নয়ডায় অবস্থিত। 

গত ২৯ ডিসেম্বর ভারতীয় একটি কোম্পানির দুটি কাশির সিরাপা সেবনের ফলে উজবেকিস্তানের ১৮ জন শিশুর মৃত্যু হয়, দাবি উজবেকিস্তান স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের। মত ২১ জন শিশু এই দুর্ঘটুনার শিকার হলে তার মধ্যে ১৮ জনই মারা যায় বলে জানা যায় স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম ও কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে। সিরাপটির নাম ছিলো ডক-১ ম্যাক্স। বলা হয় সিরাও সেবনের পর শিশুদের মধ্যে তীব্র শ্বাসকষ্ট শুরু হয় অতঃপর মারা যায়। ম্যারিওন বায়োটেকের নিজস্ব ওয়েবসাইট এ উক্ত সিরাপ দুটি সর্দি ও ফ্লু এর চিকিতসার জন্য নির্দেশিত দাবি করে বিক্রয় করা হয়। 

এই ঘটনার পর গত বুধবার ১১ই জানুয়ারি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা তাদের এক সতর্ক বার্তায় জানায় ম্যারিওনের তৈরি সিরাপ দুটি হলো ডক-১ ম্যাক্স ও অ্যাম্ব্রনল । কারণ খুজতে গিয়ে পরীক্ষা করে দেখা যায় সিরাপ দুটিতে ডাইইথিলিন গ্লাইকোল ও ইথিলিন পরিমিত পরিমাণের বেশি ব্যবহার করা হয়েছে। তাই হু জনসাধারণের উদ্দেশ্যে সতর্ক করে বলেছে এই ওষুধ দুটি যথাযথ মান রক্ষা করতে ব্যর্থ হয়েছে। তাই এগুলো অনিরাপদ। যার ব্যবহারে শিশুর অবস্থার অবনতি এমনকি মৃত্যুও হতে পারে।

উজবেকিস্তানের শিশুদের মৃত্যুর সাথে এই দুটি কাশির সিরাপের সম্পৃক্ততা নিশ্চয়তা দেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। তবে ভারতের জন্য এ ধরণের অভিজ্ঞতা নতুন নয়। এর আগেও গামিবিয়াতে ভারতের উপাদিত চারটি কাশির সিরাপ সেবন করে ৬৬ জন শিশুর মৃত্যু হয়। ঐ ৪ টি সিয়াপকে দায়ী করে থাকলেও পরবর্তীতে যথাযথ প্রমাণ মেলেনি। 

 

ব্রেস্ট ক্যান্সারের লক্ষণ ও চিকিৎসা নিয়ে আলোচনাঃ

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button