বিশ্ব রাজনীতি নিয়ে আলোচনায় ঢাকায় লিট ফেস্ট

বিশ্ব রাজনীতি নিয়ে আলোচনায় ঢাকায় লিট ফেস্ট

চলছে ১০ম ঢাকায় লিট ফেস্ট। এ যেনো শিল্প সাহিত্য ও নানান বিষয়ের বৈশ্বিক মিলন মেলা। এরই মাঝে আলোচনায় এসেছে ভূ-রাজনীতিতে চীন ও রাশিয়ার প্রভাব নিয়ে। কেমন হবে তাদের ভবিষ্যত পরিকল্পনা? কতটা ভয়াবহ হবে তাদের স্বৈরাচারি প্রভাব? ইত্যাদি বিষয়ে আলোচনা হয়ে গেলো ঢাকা লিট ফেস্টের ২য় দিন।  আলোচনায় আরো ছিলো যুদ্ধের কু-প্রভাব, কূটনৈতিক সম্পর্কের তাতপর্য, অর্থ মন্দা ও জ্বালানী সংকট ইত্যাদি বিষয় কীভাবে বিশ্বকে নতুন চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি করছে সেসব বিষয়। 

২য় দিন লিত ফেস্টে বাংলা ট্রিবিউন এর এডিটর জাফর সোবহান এর সঞ্চালতি কর্মসূচীতে বক্তব্য দেন, ম্যাসাচুসেটস বোস্টন বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান ও আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের ইমেরিটাস অধ্যাপক উইন্সটন ই ল্যাংলি, সংসদ সদস্য কাজী নাবিল আহমেদ ও সাংবাদিক ডমিনিক জিগলার।

উক্ত অনুষ্ঠানটি ‘পাওয়ার প্লে’ শিরোনামে আয়োজিত হয়। উক্ত আলোচনায় যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া ও চীন এর মত অন্যান্য পরাশক্তি গুলোর অভ্যন্তরীন প্রভাব ও সম্পর্ক নিয়ে মতামত দেন আলোচনায় অংশগ্রহণকারী সম্মানীত অতিথিরা। 

উইন্সটন ই ল্যাংলি, ‘যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের মধ্যে যুদ্ধ’র লেখক, এই দুই দেশের মাঝে নানা মেরুকরণ ও সমীকরণ তুলে ধরেন তাদের নিজ নিজ অবস্থান থেকে। ল্যাংলি ম্যাককরম্যাক গ্র্যাজুয়েট স্কুল ফর পলিসি অ্যান্ড গ্লোবাল স্টাডিজের সিনিয়র ফেলো এবং  ম্যাসাচুসেটস বোস্টন বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান ও আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের ইমেরিটাস অধ্যাপক। শিক্ষকতায় তার অভিজ্ঞতা ৪০ বছর। 

ল্যাংলি তার বক্তব্যে বলেন,  ‘অনেক কেস স্ট্যাডি রয়েছে ঐতিহাসিক সংঘাত এবং যুদ্ধ নিয়ে। আমেরিকা ও চীনের বর্তমান সম্পর্ক ভবিষ্য আন্তর্জাতিক সম্পর্কের ওপরও প্রভাব বিস্তার করছে। সম্ভবত বর্তমানে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো দ্বিপক্ষীয় আন্তর্জাতিক সম্পর্ক।

জলবায়ু পরিবর্তনে এই অধ্যাপক বাংলাদেশের প্রশংসা করে বলেন, ‘বিশ্ব আলোচনায় জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে বাংলাদেশ। ছোট দেশগুলো জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে, অর্থনীতিতে প্রভাব পড়ছে।’

এদিকে সংসদ সদস্য কাজী নাবিল আহমেদ তার বক্তব্যে আন্তর্জাতিক রাজনীতির সম্পর্কে বাংলাদেশের চ্যালেঞ্জগুলো নিয়ে কথা বলতে গিয়ে বলেন, ‘আমাদের নানা ধরনের সংকট আছে। এক মিলিয়ন রোহিঙ্গা বাংলাদেশে অবস্থা করছে। রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের প্রভাবে আমরাও নানা সংকটের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি। এসব কিছুর প্রভাবও আমাদের ওপর পড়ছে। যেমন, সারা বিশ্বের মতো বাংলাদেশও জালানি সংকটে।’

তার বক্তব্যে তিনি উল্লেখ করেন বাংলাদেশ সকল রাষ্ট্রের সাথে সহাবস্থান এ সুসম্পর্ক রেখে কাজ করার নীতিতে বিশ্বাসী। 

অনুষ্ঠানে আরেক বক্তা প্রখ্যাত সাংবাদিক ডমিনিক জিগলারও বক্তব্য রাখেন। ডমিনিক এশিয়া ও চীন নিয়ে লেখালেখি করে থাকেন। তিনি দ্যা ইকোনমিস্টের সিঙ্গাপুর ব্যুরো প্রধান। একই সাথে দ্যা ইকোনমিস্ট এ ‘ব্যানিয়ান’ নামে একতি কলাম ও লিখে থাকেন সাপ্তাহিক ভিত্তিতে। তিনি বক্তব্যে বলেন, ‘‘দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলো দুটি পরাশক্তির ফাঁদে আটকে আছে। চীন নিজেকে বিশ্বের কেন্দ্রবিন্দুতে রাখতে চায়। দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোতে যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের মধ্যে অর্থনৈতিক, কৌশলগত এবং সামরিক প্রতিদ্বন্দ্বিতার প্রভাব রয়েছে।’’

বহু অপেক্ষার পর গত ৫ই জানুয়ারি  দেশি-বিদেশি সাহিত্যিক, কবি,  লেখকও চিন্তাবিদদের নিয়ে ঢাকা লিট ফেস্ট ২০২৩শুরু হয়। এটি ঢাকা লিট ফেস্টের দশম আয়োজন। করোনার দরুন বিগত ৩ বছর বন্ধ ছিল এই উসব।

৪ দিনের এই উসবে সেশন থাকবে ১৭৫টির বেশি যেখানে  অংশ নিবেন ৫টি মহাদেশের ৫০০’রও বেশি শিল্পী, বক্তা ও চিন্তাবিদরা। বড়দের পাশাপাশি ৪ দিনব্যাপী এই ফেস্টে শিশুদের জন্যও থাকছে  নানা আয়োজন। শিশুদের জ্ঞান চর্চা, বিজ্ঞান চর্চা, বিনদনের  কথা মাথায় রেখে সাজানো হয়েছে ঢাকা লিট ফেস্টের সকল অনুষ্ঠান।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button